৯ম শ্রেণির ২১ তম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

0
23294

৬ষ্ঠ/৭ম/৮ম/৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য অ্যাসাইনমেন্ট ২১ তম সপ্তাহের সমাধান /উত্তর

২১ তম সপ্তাহের ৬ষ্ঠ,৭ম, ৮ম, ৯ম শ্রেণির এসাইনমেন্ট ২০২১

৯ম শ্রেণির ২১ তম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১. আসসালামু আলাইকুম প্রিয় ছাত্র ও ছাত্রী বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই? আসা করি সবাই ভালো আছেন। বরাবরের মতো, প্রতি সপ্তাহে আপনার জন্য  ২১ তম অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ৬ষ্ঠ,৭ম,৮ম,৯ম ও ১০ম শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশের পরে, আমরা অবিলম্বে ষষ্ঠ,৭ম, অষ্টম, নবম শ্রেণির উত্তর ২০২১ দিচ্ছি। আজকের পোস্টে, আমি তোমাদের ষষ্ঠ,৭ম,৮ম,৯ম শ্রেণির ২১তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর শেয়ার করবো। ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম ও ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত ২১তম সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট।

Covid-19 মহামারীর কারণে এবছরের জুলাই মাসের শেষের চলমান নির্ধারিত কাজ (এসাইনমেন্ট) কার্যক্রম স্থগিত করা হয় এবং পরবর্তীতে  অগাস্ট মাসের ১১ তারিখে পূণরায় এ্যাসাইনমেন্টের কার্যক্রম শুরু করা হয়। ২০২১ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে পড়াশোনার ধারা বজায় রাখার জন্য পূণরায় ৬ষ্ঠ,৭ম,৮ম ও ৯ম শ্রেণির বিভিন্ন বিষয়ের উপর এসাইনমেন্ট গ্রহন করার প্রক্রিয়া চলতে থাকবে।

 

আরো পড়ুন-

৯ম শ্রেণির ২১তম সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট বাংলা এর উত্তর ২০২১

৯ম শ্রেণির ২১তম সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট সমাধান উত্তর, ৯ম শ্রেণির ২১ তম সপ্তাহ অ্যাসাইনমেন্ট, ৯ম শ্রেণির ২১তম সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট, ৯ম শ্রেণির ২১তম সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট

Make Money Online

৯ম-নবম শ্রেণির ২১ তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট উত্তর-সমাধান ২০২১ বাংলা

২২-১০-২০২১
প্রতিবেদনের প্রকৃতি: সংবাদপত্র
সময়: সকাল ১০টা
কাওরানবাজার,ঢাকা

বিষয়: কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে মাস্ক পরার গুরুত্ব।

জনজীবনে মাস্ক পড়ার গুরুত্ব।

নিজস্ব প্রতিনিদি,ঢাকা।
করােনাভাইরাস বলতে ভাইরাসের একটি শ্রেণিকে বোঝায় যেগুলি স্তন্যপায়ী প্রাণী এবং পাখিদেরকে আক্রান্ত করে। মানুষের মধ্যে করানাভাইরাস শ্বাসনালীর সংক্রমণ ঘটায়। এই সংক্রমণের লক্ষণ মৃদু হতে পারে, অনেকসময় যা সাধারণ সর্দিকাশির ন্যায় মনে হয়। হাঁচি ও কাশির মাধ্যমে সৃষ্ট পানিকণার ফলে আক্রান্তর সংস্পর্শে অপর ব্যক্তি আক্রান্ত হতে পারে। বিশ্বের বহু দেশেই সংক্রমণ ঠেকানোর একটি জনপ্রিয় ব্যবস্থা হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার। মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত বিশ্বব্যাপী বহুল আলোচিত প্রাণঘাতী অসুখ করানাভাইরাস। সভ্যতার ইতিহাসে খুব কম উদাহরণ রয়েছে, যেখানে একটা রোগ এতো দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।

বিশ্বে প্রতি ১০ জনে একজন এরই মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমিত বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরিসংখ্যানে জানা গেছে। বাংলাদেশে শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৫ শতাংশ। শনাক্তের দিক থেকে পঞ্চদশ আর মৃতের সংখ্যায় বাংলাদেশ রয়েছে ২৯তম অবস্থানে। যদিও পরিসংখ্যান বলছে, অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে সুস্থতার হার বেশি। মৃত্যু হার কম। তবুও বিপুল জনঘনত্বের দেশে মানুষ একবার রাস্তায় বেরোলে গায়ে গায়ে ঠেসাঠেসি অনিবার্য। সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি রয়ে যায়। পাশাপাশি অপ্রয়োজনীয় ঘোরাফেরাও ছােটখাটো অনুষ্ঠানাদি, আত্মীয়-স্বজনের বাসায় বেড়াতে যাওয়ার হচ্ছে প্রচুর। বেড়েছে প্রবণতা। বাস বা অন্যান্য যানবাহনে গাদাগাদি করে যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে। হাট-বাজারে মানুষ গাদাগাদি করে কেনাকাটা করছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও বারবার করে বলে আসছে, “মাস্ক পরলে জীবাণুর ড্রপলেট থেকে সুরক্ষা পাওয়া সম্ভব”।

বিজ্ঞানীরাও দাবি করছেন, “করোনা বাতাসের মাধ্যমেও ছড়ায়।” তাই মাস্ক ব্যবহার আরও জরুরি। বাইরে পা দিলেই মাস্ক জরুুরি। বর্তমানে করােনায় আক্রান্ত্র প্রায় ৪০ শতাংশ রোগীই উপসর্গহীন। এদের শরীরে ভাইরাস বাসা বাঁধলেও রোগ লক্ষণ ফুটে ওঠে না। মুশকিল হলাে, এরা কিন্তু অন্যের মধ্যে রােগ ছড়িয়ে দিতে পারে। রাোগ লক্ষণ থাকে না বলে এদের চিহ্নিত করাও কঠিন। ভাইরাস ঠেকাতে মাস্ক তাই অন্যতম এক পরিধানের অনুষঙ্গ। সংক্রমিত ব্যক্তি ঠিকঠাকভাবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে মাস্ক পরলে, তার নাক, মুখ থেকে ড্রপলেট বেরােলেও মাস্ক আটকে দেয়। আক্রান্তের কাছাকাছি চলে আসা সুস্থ মানুষের পক্ষে তখন রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে এ মাস্ক।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে মাস্ক ভ্যাকসিন না আসা পর্যন্ত প্রতিরোধে এখন থেকে প্রয়োজন মিলিটারির মতো অনুশাসন। সাবধানতা হিসেবে গ্লাভস ও মাস্ক পরা, ঘন ঘন হাত ধোয়া। কমপক্ষে ছয় ফুটের সামাজিক দূরত্ব রক্ষা করা। মাস্ক ছাড়া লোকজন কিংবা যারা জোরে কথা বলে তাদের সামনে না যাওয়া। যানবাহন ও বাজারে সর্বত্র ভিড় পরিহার করা। টাকা বা কাগজ গোনার সময় আঙুল দিয়ে জিহ্রা বা ঠোঁট স্পর্শ না করা। চুলসহ শরীর যথাসম্ভব আবৃত রাখা। বাইরে থেকে বাড়িতে ফিরে সব পরিধেয় ধুতে দেওয়া। হাত-মুখ না ধুয়ে ঘরের কোনো কিছু না ধরা ইত্যাদি প্রাত্যহিক কাজ এখন জরুরি হয়ে পড়েছে। এখনো করোনার কার্যকর ওষুধের অভাব রয়েছে। এ অবস্থায় শুধু ব্যক্তিগত সচেতনতাই পারে করোনা প্রতিরোধ করতে।

আরো পড়ুন

ঘরে বসে অনলাইনে কিভাবে টাকা উপার্জন করবেন ফ্রীতে –How to make money online from home CLICK HERE IT’S FREE

Previous article৮ম শ্রেণির ২১ তম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর
Next article৯ম শ্রেণির ২১তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট শারীরিক শিক্ষা এর উত্তর
প্রিন্স ম্যাক্স দুরবিন নিউজ২৪ এর সম্পাদক, তিনি বাংলা ভাষায় আগ্রহী। তিনি দুরবিন নিউজ২৪ এর জন্য অনেক বিষয়ে লেখেন। তিনি দুরবিন নিউজের এসইও বিশেষজ্ঞ, তার প্রচেষ্টার কারণে দুরবিন নিউজ একটি সফল বাংলা ওয়েবসাইট হয়ে উঠেছে। Entrepreneur | Content Creator | YouTuber | Blogger.