৬ষ্ট ষষ্ঠ শ্রেণির ১৮ তম সপ্তাহের শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর | ৬ষ্ঠ শ্রেণির ১৮তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট সমাধান

৬ষ্ঠ/৭ম/৮ম/৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য অ্যাসাইনমেন্ট ১৮ তম সপ্তাহের সমাধান /উত্তর

১৮ তম সপ্তাহের ৬ষ্ঠ,৭ম, ৮ম, ৯ম শ্রেণির এসাইনমেন্ট ২০২১

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় ছাত্র ও ছাত্রী বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই? আসা করি সবাই ভালো আছেন। বরাবরের মতো, প্রতি সপ্তাহে আপনার জন্য  ১৮ তম অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ৬ষ্ঠ,৭ম,৮ম,৯ম ও ১০ম শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশের পরে, আমরা অবিলম্বে ষষ্ঠ,৭ম, অষ্টম, নবম শ্রেণির উত্তর ২০২১ দিচ্ছি। আজকের পোস্টে, আমি তোমাদের ষষ্ঠ,৭ম,৮ম,৯ম শ্রেণির ১৮তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট প্রশ্ন ও উত্তর শেয়ার করবো। ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম ও ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত ১৮তম সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্ট।

Covid-19 মহামারীর কারণে এবছরের জুলাই মাসের শেষের চলমান নির্ধারিত কাজ (এসাইনমেন্ট) কার্যক্রম স্থগিত করা হয় এবং পরবর্তীতে  অগাস্ট মাসের ১১ তারিখে পূণরায় এ্যাসাইনমেন্টের কার্যক্রম শুরু করা হয়। ২০২১ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে পড়াশোনার ধারা বজায় রাখার জন্য পূণরায় ৬ষ্ঠ,৭ম,৮ম ও ৯ম শ্রেণির বিভিন্ন বিষয়ের উপর এসাইনমেন্ট গ্রহন করার প্রক্রিয়া চলতে থাকবে।


আরো পড়ুন-

৬ষ্ট/ষষ্ঠ শ্রেণির ১৮তম সপ্তাহের শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য এসাইনমেন্ট উত্তর/সমাধান ২০২১

১৮ তম সপ্তাহের শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর

প্রাথমিক চিকিৎসা চিকিৎসাশান্ত্রের একটি অংশ। প্রাথমিক চিকিৎসার স্রষ্টা হলেন ড. ফ্রেডিক এজমার্ক। তিনি ছিলেন একজন জার্মান শল্যচিকিৎসক। তিনিই প্রথম চিন্তা করেন যেকোনাে দুর্ঘটনায় আহতে রােগীকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়ার আগে রােগীর অবস্থার অবনতি যাতে না ঘটে সে ব্যবস্থা অবস্থার অবনতি যাতে না ঘটে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়ােজন। অতএব প্রাথমিক চিকিৎসা হচ্ছে হঠাৎ কোনাে দৈব দুর্ঘটনায় ডাক্তার না আসা পর্যন্ত হাতের কাছের জিনিস দিয়ে রােগীকে প্রাথমিকভাবে সাহায্য করা এবং রােগীর অবস্থা যাতে জটিলতর না হয় সেদিকে লক্ষ রেখে সাময়িক ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

প্রাথমিক চিকিৎসা বা প্রতিবিধানের ইংরেজি প্রতিশব্দ হলাে ফার্স্ট এইড (First Aid) First অর্থ প্রথম আর Aid অর্থ সাহায্য। সুতরাং First Aid অর্থ প্রথম সাহায্য। কোনো আহত ব্যক্তিকে সবার আগে যে সাহায্য করা হয়, তা-ই প্রাথমিক চিকিৎসা। 


আমি একজন স্কাউট বা গার্ল গাইড সদস্য। আমার বাসার একজন সদস্যের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রয়াোজন। এতে আমর যা যা করণীয় তা নিচে লেখা হলাে: 
১) রোগনির্ণয়: কী কারণে অসুস্থতার সৃষ্টি হয়েছে তা আমাকে খুঁজে বের করতে হবে। রােগের লক্ষণ, চিহ্ন বা ইতিহাস থেকে রোগ হয়েছে তা আমাকে খুঁজে বের করতে হবে। রোগের লক্ষণ, চিহ্ন বা ইতিহাস থেকে রোগ নির্ণয় করা সম্ভব। 
২) চিকিৎসা: কতটুকু চিকিৎসার প্রয়োজন তা নির্ণয় করে ডাক্তার আসার আগ পর্যন্ত যাতে রোগীর অবস্থার অবনতি না হয় সে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৩) স্থানান্তর: রােগীকে নিরাপদ জায়গায় স্থানান্তরের ব্যবস্থা করতে হবে। প্রয়োজন হলে ডাক্তারের কাছে বা হাসপাতালে স্থানান্তর করতে হবে।

আমার পরিবারের কোন সদস্যদের যদি কোন অংশ কেটে যায় তাহলে আমি যা করব তা নিচে লেখা হলাে:

  • প্রথমেই আহত ব্যক্তির কোথায় কতটুকু কেটেছে তা চিহ্নিত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। 
  • সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করে কাটা স্থান পানি দিয়ে ধুয়ে তুলা বা কাপড় দিয়ে মুছতে হবে।
  • সাবান দিয়ে হাত পরিষ্কার করে কাটা স্থান পানি দিয়ে ধুয়ে তুলা বা কাপড় দিয়ে মুছতে হবে। 
  • ক্ষতের চারপাশ ডেটল বা স্যাভলন বা অন্য কোনো জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।
  • ক্ষতস্থানের জমাট বাঁধা রক্ত সরানো উচিত নয়। সরালে পুনরায় রক্তক্ষরণ হতে পারে।
  • সামান্য ক্ষত হলে সরাসরি আঙুলে চাপ দিয়ে এবং বড় ধরনের ক্ষত হলে তুলা বা গজ দিয়ে চেপে ধরে রক্তপাত বন্ধ করতে হবে।


আমার পরিবারের কোন সদস্যদের যদি কোন অংশ পােড়ে যায় তাহলে আমি যা করব তা নিচে লেখা হলাে:
আগুন, গরম পানি, জ্বলন্ত বস্তু ও গরম তরল পদার্থ থেকে দুর্ঘটনাবশত শরীরের কোনো অংশ পুড়ে গেলে পােড়া জায়গায় ঠাণ্ডা পানি বা ডিমের সাদা অংশ মাখিয়ে দিতে হবে।
আগুন, গরম পানি, জ্বলন্ত বস্তু ও গরম তরল পদার্থ থেকে দুর্ঘটনাবশত শরীরের কোনোে অংশ পুড়ে গেলে পােড়া জায়গায় ঠাণ্ডা পানি বা ডিমের সাদা অংশ মাখিয়ে দিতে হবে। কোনাে জায়গায় ফোস্কা দেখা দিলে ফোস্কা গলানাে উচিত নয়। সাথে সাথে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

আমার পরিবারের কোন সদস্যদের যদি কোন অংশ ছড়ে যায় তাহলে আমি যা করব তা নিচে লেখা হলাে: 
হাতুড়ি, ইট, পাথর প্রভৃতি ভোঁতা জিনিসের আঘাতে বা জীবজন্তু কামড় দিলে শরীরের কোনাে অংশ ছড়ে যেতে পারে। ফলে আহত স্থানে রক্ত জমাট বেঁধে কালচে হয়ে পড়ে।
  • প্রথমেই আহত স্থানে ঠাণ্ডা পানি বা বরফ দিয়ে ব্যথা কমাতে হবে।
  • পরিষ্কার কাপড় ঠাণ্ডা পানিতে ভিজিয়ে আঘাতপ্রাপ্ত স্থানে বরফ বা ঠাণ্ডা পানি লাগাতে হবে।
  • আহত স্থানে কোনোরূপ ম্যাসাজ করা যাবে না।
  • প্রয়োজনে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে।


আরও পড়ুন –

Share This Post

2 Responses

Leave a Reply

Biography

WordPress Embed

https://your-site.com/privacy/

Copy and paste this URL into your WordPress site to embed

WordPress Embed

https://www.your-site.org/about-us/

Copy and paste this URL into your WordPress site to embed