গ্রাম থেকে ব্যবসা করার আইডিয়া | Village Business Ideas in Bangla | গ্রামে কি ব্যবসা করা যায়

0
635

কিভাবে গ্রামে ব্যবসা করবেন, গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া, গ্রাম থেকে ব্যবসা করার আইডিয়া (Village Business Ideas in Bangla)

Make Money From Home: আমাদের দেশের, সর্বাধিক জনসংখ্যা গ্রামে বাস করে। দেশের মোট জনসংখ্যার ৬৯% গ্রামাঞ্চলে বাস করে। এমন অবস্থায় সব মানুষ শহরে গিয়ে অর্থ উপার্জন করতে পারে না। গ্রামে নিজের ব্যবসা শুরু করে একটি ভাল আয় করা যেতে পারে। সরকার গ্রামাঞ্চলের উন্নয়নে বিশেষ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। বিশেষ করে গ্রামীণ বাসিন্দাদের জন্য বিভিন্ন স্কিম পরিচালিত হচ্ছে। আজ আমরা আপনাকে গ্রামে বসবাসের সময় কোন ব্যবসা শুরু করতে পারেন সে সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি। এটি দিয়ে আপনি ভালো উপার্জন করতে পারেন।
 
গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া, গ্রাম থেকে ব্যবসা করার আইডিয়া, গ্রামে কি ব্যবসা করা যায়, ব্যবসা করার পদ্ধতি, পাইকারি ব্যবসার আইডিয়া, উৎপাদন ব্যবসা, পৃথিবীর সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা, বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা, টাকা ছাড়া ব্যবসা করার উপায়, সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা কোনটি, বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা ২০২১


গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া

 

পণ্য পরিবহন –
 
গ্রামাঞ্চলে অধিকাংশ মানুষ কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। কিছু মানুষ এর চেয়ে ভাল অর্থ উপার্জন করে ধনী হয়ে যায়, আবার কিছু দরিদ্র থাকে। গ্রামে পরিবহন সুবিধা ভালো নয়, কৃষকদের শহরে যেতে হয় তাদের শস্য, ফল ও সবজি বিক্রি করতে, কিন্তু যানবাহনের অভাবে তাদের শহর যেত অনেক কষ্ট করতে হয়, তাদের খরচ ও বেশি করতে হয়। আপনি গ্রামে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এর জন্য আপনার একটি ট্রাক্টর ট্রলি লাগবে, যা আপনি ভাড়ায় চালিয়ে ভালো লাভ করতে পারবেন। গাড়ি কেনার সময় আপনাকে টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।
 
আচার ও পিঠা তৈরি ব্যবসা –
 
গ্রামে আচার বা পিঠা তৈরি করে গ্রামে বিক্রি করতে হবে এমন নয়। বরং, আপনি শহরে বেশি দামে বিক্রি করতে পারবেন। প্রাণ বা রুচি কোম্পানি আচার তৈরি করলেও, শহরের মানুষ সাধারণত হাতে তৈরি আচারের প্রতি বেশি আস্থা রাখে। সুন্দরবনের শেফালী বেগম নামে এক মহিলা এরকম আচার তৈরি করে স্বাবলম্বী হয়েছে যা দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকায় উঠে এসেছে। তাই, এমন আচার বা পিঠা তৈরি করুন যা বেশি দিন স্থায়ী হয়। এছাড়া, আপনি এগুলো ফেসবুকের মাধ্যমেও বিক্রি করতে পারেন।
পোল্ট্রি বা মুরগির খামার –
 
ডিম এবং মুরগির চাহিদা সর্বত্র, আপনি গ্রামেও এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এর চাহিদা কখনই কমে না, আপনার এই ব্যবসা সবসময় চলবে। খোলা জায়গায় এর জন্য আপনার একটু বড় জায়গার প্রয়োজন হবে। আপনি আপনার নিকটস্থ হোটেল, স্থানীয় দোকানের সাথে কথা বলে ব্যবসা করতে পারেন।
রিচার্জের দোকান –
 
আপনি গ্রামে একটি মোবাইল রিচার্জের দোকান খুলতে পারেন। আজকাল মোবাইল সবার কাছে আছে, কিন্তু গ্রামের সবজায়গায় রিচার্জের দোকান পাওয়া যায় না। মোবাইল রিচার্জ ছাড়াও আপনি মোবাইল আনুষাঙ্গিক যেমনঃ মোবাইল চার্জার, মোবাইল ব্যাটারী, মোবাইল হেডফোন ইত্যাদি রাখতে পারেন। মোবাইল ফোনও রাখতে পারেন।
দুগ্ধ –
গ্রামে গরু -মহিষের ভালো জাত আছে। আপনার যদি গরু মহিষ থাকে তবে আপনি দুগ্ধের কাজও শুরু করতে পারেন। আপনার ব্যবসা বাড়ার সাথে সাথে আপনি আরও গরু -মহিষ কিনতে পারবেন। আপনি প্যাকেট তৈরি করতে পারেন বা খোলা অবস্থায় বিক্রি করতে পারেন।
অবশ্যই পড়ুন
 
 
দর্জি –
যদি আপনি সেলাই জানেন তাহলে আপনি টেইলারিং, ট্রেলারের কাজ শুরু করতে পারেন। এই জন্য আপনি একটি সেলাই মেশিন এবং কিছু উপাদান প্রয়োজন হবে। আপনি আপনার বাড়ির একটি ছোট ঘরেও এই কাজ শুরু করতে পারেন। পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও এই ব্যবসা করতে পারে। দুজনেই একসাথে এই ব্যবসা করতে পারে।
হস্ত শিল্পের কাজ –
হস্ত শিল্পের চাহিদা যুগ যুগ ধরে রয়েছে এবং থাকবে। বর্তমানের শহুরে জীবনের এর চাহিদা আগের থেকে অনেক বেশি। আপনি চাইলে এসব হস্ত শিল্পের মাধ্যমে আপনার ব্যবসায়ের জীবন সূচনা করতে পারেন। গ্রামে আপনি হস্ত শিল্পের অনেক কারিগর পাবেন তাও আবার কম খরচে। হস্ত শিল্পের কাজ করে স্বাবলম্বী হয়েছে এরকম শত শত উদাহরন আছে। আমি পত্রিকায় প্রকাশিত কিছু তথ্য তুলে ধরছি।
পত্রিকায় প্রকাশিত কিছু তথ্য 👇🏻
সেলুন –
আপনি একটি সেলুন বা নাপিতের দোকান খুলতে পারেন। এটি একটি দৈনন্দিন প্রয়োজনীয়তা, যা সর্বত্র হতে হবে। গ্রামে, আপনি একটি সুন্দর সেলুন খুলতে পারেন, এখানে আপনি পুরুষদের সাজগোজের জন্য সব ধরনের সুযোগ -সুবিধা দিতে পারেন।
বীজ সার দোকান –
আপনি কৃষকদের জন্য ভালো মানের বীজ, বিভিন্ন ধরনের সার রেখে একটি দোকান খুলতে পারেন। কৃষকদের এর জন্য বহুবার শহরে যেতে হয়, যদি তারা গ্রামে এই সব ভাল মানের পণ্য পায়, তাহলে তাদের সময় এবং অর্থ উভয়ই সাশ্রয় হবে।
অবশ্যই পড়ুন
ওয়েল্ডিং এবং ফ্যাব্রিকেশন ব্যবসা-
এই ব্যবসায় লোহার গেট, গ্রিল, বিভিন্ন ধরনের জানালার দরজা তৈরি করা হয়। আপনি গ্রামে এই ব্যবসা খুলতে পারেন। আজকাল বাড়ি ঘর সর্বত্র নির্মিত হয়, প্রত্যেককে তাদের বাড়িতে সর্বোত্তম সুবিধা প্রদান করতে চায়। আপনার এই ব্যবসা গ্রামেও অনেক মুনাফা পাবেন।
গরু-ছাগল, হাঁসমুরগি বা কবুতর পালন –
গরু-ছাগল বা হাঁস-মুরগি পালনের ব্যবসা নতুন কিছু নয়। কিন্তু এটা খুব লাভজনক ব্যবসা যদি শুরু করতে পারেন। কারণ, এর চাহিদা সবসময় থাকে। এছাড়া, আপনি যদি শৌখিন হয়ে থাকেন তাহলে, কবুতর কিংবা কোয়েল পাখির ব্যবসা শুরু করে দিতে পারেন। এসব ব্যবসা শুরু করার আগে প্রাথমিকভাবে কিছু জ্ঞান অর্জন করে নেয়া ভাল।
ফার্মেসী ব্যবসা-
গ্রামের মানুষেরও ঔষধের প্রয়োজন হয়। গ্রামে অনেক সময়টি একটি ঔষধের জন্য শহরে ছুটতে হয়। আপনি চাইলে গ্রামে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। আর আপনার ব্যবসা বৃদ্ধির জন্য একজন এমবিবিএস ডাক্তারের চেম্বার খুলতে পারেন। এর ফলে, গ্রামের মানুষ চিকিৎসার সুবিধা যেমন পাবে, তেমনি আপনার বিক্রিও ভাল হবে।
এরকম কিছু ব্যবসা গ্রহণ করে, আপনি গ্রামে ভাল মুনাফা অর্জন করতে পারেন। অর্থ উপার্জনের জন্য আপনাকে শহরে যেতে হবে না। কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে একজন মানুষ যে কোন জায়গায় বসবাস করে বড় মানুষ হতে পারে।
অবশ্যই পড়ুন

 

Previous articleসাপ্তাহিক চাকরির খবর ১৩ আগস্ট ২০২১ PDF Download -চাকরির খবর পত্রিকা ১৩ আগস্ট ২০২১ | Saptahik Chakrir Khobor 13 August 2021 PDF
Next articleSmall Rural Business Ideas : গ্রামে বসবাস করে ব্যবসা করার জন্য এই ৫ টি ধারণা সবচেয়ে ভাল, তাদের সম্পর্কে জানুন